‘সেঞ্চুরি’ সাকিবের কলকাতার


Notice: Trying to access array offset on value of type null in /mnt/volume_sgp1_04/met34v6b0d/public_html/details.php on line 293
|| মাটি এন্টারটেইনমেন্ট

প্রকাশিত: ১১:৩৯, ১২ এপ্রিল ২০২১
‘সেঞ্চুরি’ সাকিবের কলকাতার

‘সেঞ্চুরি’ সাকিবের কলকাতার

রোববার রাতে আইপিএলের নতুন মৌসুমে নিজেদের যাত্রা শুরু করেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। প্রথম ম্যাচে তারা হারিয়েছে ২০১৬ সালের চ্যাম্পিয়ন সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে। নিতিশ রানা ও রাহুল ত্রিপাঠির ঝড়ের পর প্রাসিদ কৃষ্ণার দারুণ বোলিংয়ে কলকাতা পেয়েছে ১০ রানের জয়।

আর এ জয়ের মাধ্যমে দারুণ এক মাইলফলকে পৌঁছে গেছে কিং খানের দল। মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ও চেন্নাই সুপার কিংসের পর আইপিএলের তৃতীয় দল হিসেবে জয়ের সেঞ্চুরি পূরণ করেছে তারা। সেজন্য খেলতে হয়েছে ১৪ আসরের ১৯৩টি ম্যাচ।


২০১৯ সালের আসরে প্রথম দল হিসেব জয়ের সেঞ্চুরি করেছিল মুম্বাই। তারাই এখন জয়ের তালিকায় শীর্ষে। একমাত্র দল হিসেবে আইপিএলে ২০০ ম্যাচ খেলার রেকর্ডটাও আইপিএলের পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের দখলে।

নিষেধাজ্ঞার কারণে দুই বছর খেলতে না পারা চেন্নাই সুপার কিংসও জয়ের সেঞ্চুরি পূরণ করেছে ২০১৯ সালে। তবে গতবছরের ভরাডুবির কারণে মুম্বাইয়ের চেয়ে অনেক পিছিয়ে গেছে তারা।

এবার ২০২১ সালের আসরের প্রথম ম্যাচেই সেঞ্চুরি হলো কলকাতার। এমন সাফল্যের পর কলকাতাকে শুভেচ্ছাবার্তা জানিয়ে টুইট করেছেন দলের মালিক ও বলিউড কিং শাহরুখ খান।

কলকাতার পর সেঞ্চুরির সামনে দাঁড়িয়ে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। এবারের আসরে ৮টি জয় পেলেই পূরণ হবে তাদের সেঞ্চুরি। একইসঙ্গে তিনটি ম্যাচ খেললে দ্বিতীয় দল হিসেবে ২০০ ম্যাচ খেলার রেকর্ড হবে ব্যাঙ্গালুরুর।


আইপিএলে সর্বোচ্চ জয়ের তালিকা
১/ মুম্বাই ইন্ডিয়ানস - ২০৪ ম্যাচে ১২০ জয়
২/ চেন্নাই সুপার কিংস - ১৮০ ম্যাচে ১০৬ জয়
৩/ কলকাতা নাইট রাইডার্স - ১৯৩ ম্যাচে ১০০ জয়
৪/ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু - ১৯৭ ম্যাচে ৯২ জয়
৫/ পাঞ্জাব কিংস - ১৯০ ম্যাচে ৮৮ জয়
৬/ দিল্লি ক্যাপিট্যালস - ১৯৫ ম্যাচে ৮৭ জয়
৭/ রাজস্থান রয়্যালস - ১৬১ ম্যাচে ৮১ জয়
৮/ সানরাইজার্স হায়দরাবাদ - ১২৫ ম্যাচে ৬৬ জয়
৯/ ডেকান চার্জার্স - ৭৫ ম্যাচে ২৯ জয়
১০/ রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্ট - ৩০ ম্যাচে ১৫ জয়
১১/ গুজরাট লায়নস - ৩০ ম্যাচে ১৩ জয়
১২/ পুনে ওয়ারিয়র্স - ৪৬ ম্যাচে ১২ জয়
১৩/ কোচি তাস্কার্স কেরালা - ১৪ ম্যাচে ৬ জয়