|| মাটি এন্টারটেইনমেন্ট

প্রকাশিত: ১৫:৪৫, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শিশুদের স্মার্টফোন ও কম্পিউটার নেশা কাটাবেন যেভাবে

শিশুদের স্মার্টফোন ও কম্পিউটার নেশা কাটাবেন যেভাবে

ছবি : সংগৃহীত

প্রযুক্তির যুগে এই সময়ে শিশুরা হাত বাড়ালেই পাচ্ছে নানা ধরনের স্মার্টফোন গুলো এর ভেতরে অন্যতম। 
শিশুরা এখন আর বাইরে গিয়ে খেলার সঙ্গে পরিচিত নয়। তারা খেলা বলতে বোঝে মোবাইলের স্ক্রিনে হরেকরকম খেলা। কিন্তু এই খেলার নেশা শিশুর কোনো উপকারে আসে না, বরং মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। পাশাপাশি শিশুদের পড়াশোনাও লাটে উঠছে।
মোবাইলের পর্দার দিকে বেশিক্ষণ তাকিয়ে থাকলে চোখের জ্যোতি কমে যায়। শুরু হয় মাথা ধরা, মাইগ্রেন ও পেশিতে ব্যথার মতো সমস্যা। যেসব ছেলেমেয়েদের মোবাইলের নেশা অ্যাডিকশনের পর্যায়ে চলে গিয়েছে, দেখা যায়, খাওয়ার সময়েও তারা মোবাইলে কিছু না কিছু দেখছে। এই পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। তাই যত দ্রুত সম্ভব এই অভ্যাস ছাড়ান।
৮ বছরের কম বয়সের ছেলেমেয়েদের মোবাইল থেকে দূরে রাখুন। দিনের বেশিরভাগ সময় মোবাইল ঘেঁটে কাটালে তাদের মস্তিষ্কের বিকাশ হয় না। পাশাপাশি শিশুদের পড়াশোনাও ব্যাগাত গড়ছে।

শিশুদের মোবাইল ফোনের নেশা ছাড়ানো সহজ কথা নয়। শিশু জেদ করতে পারে, অনেকসময় খাওয়াদাওয়া বন্ধ করে দেয়। তাকে এ ব্যাপারে বোঝান। তারপর ধীরে ধীরে নেশা কমানোর চেষ্টা করুন।

যেসব উপায়ে শিশুর মোবাইলের নেশা ছাড়াবেন:
বাইরে বেরিয়ে খেলাধুলোয় যোগ দিতে জোর দিন। আউটডোর গেমসে যোগ দেয়ান। বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে উৎসাহ দিন। 
 টাইমটেবিল তৈরি করে দিন, তা মেনে চলতে বলুন। অবসর সময়ে হাতের কাজ, ছবি আঁকা এসবে জোর দিন। বই পড়ার অভ্যাস গড়ার চেষ্টা করেন।